Bivas
How to become a Cyber Expert, Cyber Lawyer, Cyber Security Expert (in Bengali) (Bangla)?
Bivas Chatterjee 25 Jul 2020

How to become a Cyber Expert, Cyber Lawyer, Cyber Security Expert (in Bengali) (Bangla)?


আজকাল হামেশাই লোকের মুখে মুখে শোনা যায় যে তারা তাদের ক্যারিয়ারে সাইবার এক্সপার্ট বা সাইবার আইনজীবী বা সাইবার সিকিউরিটি এক্সপার্ট হবেন | কীভাবে হবেন তা একটু দেখে নেওয়া যাক |

আজকে এই ব্লগে আমি আলোচনা করব যে একজন সাইবার বিশেষজ্ঞ বা সাইবার সিকিউরিটি বিশেষজ্ঞ বা সাইবার আইনজীবী হতে গেলে ঠিক কিভাবে এগোতে হবে, কি করতে হবে বা কি করতে হবে না ইত্যাদি ব্যাপার |

সাইবার আইনজীবী আর কিছুই নয় একজন আইনজীবী এবং আইনের সঙ্গে সঙ্গে আমার মনে হয় তার টেকনোলজি বা অন্তত প্রোগ্রামিং সম্বন্ধে একটু ভালো জ্ঞান বা কিভাবে সফটওয়্যার কাজ করে, কিভাবে হার্ডওয়ার কাজ করে কিভাবে নেটওয়ার্কিং সিস্টেম কাজ করে এগুলো জানা দরকার এবং একজন আইনজীবী কে প্রতিনিয়ত আইনের সঙ্গে সঙ্গে নতুন জিনিস পড়ার একটা ইচ্ছা বা মনের ভেতর থেকে একটা চাহিদা থাকা দরকার I

প্রথমেই বলি এই জগতে প্রতিদিন প্রতিনিয়ত বিভিন্ন রকমের নতুন নতুন টেকনোলজি হচ্ছে এবং আমি যখন রাত্রে ঘুমাতে যাই আমার মনে হয় যে পরের দিন সকালে ঘুম থেকে উঠে আমি হয়তো পৃথিবীর কোন এক প্রান্তে কোন একটা নতুন প্রযুক্তি দেখতে পাবো I তবে দুঃখের বিষয় যে প্রযুক্তির নতুনত্বের বেশিরভাগটাই অধিকার করে রেখে দিয়েছে বিভিন্ন কর্পোরেট বা বড় কোম্পানিরা যাদের অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় যে মুনাফা বাড়ানোই একমাত্র লক্ষ্য I এখানে আবার এমনও দেখা যায় যে অনেক ক্ষেত্রেই যারা অপরাধী, তারা সাইবার জগতের তদন্তকারী অফিসার বা আইন নিয়ন্ত্রকদের থেকে প্রযুক্তির দিক থেকে অনেকটাই এগিয়ে আছে অর্থাৎ কিভাবে অপরাধ হচ্ছে বা কিভাবে একটা মানুষ সাইবার ক্রাইমের শিকার হচ্ছে তা জানতে গেলে ঠিক যে প্রযুক্তি লাগিয়ে তাকে ভিকটিম বানানো হয়েছে, সেই প্রযুক্তি জানতে হবে এবং তা জানতে অনেক ক্ষেত্রে তদন্তকারী অফিসার বা আইন নিয়ন্ত্রকদের অনেকটা সময় এবং পরিশ্রম দিতে হয় I তাই আমি আবার বলবো, একজন সাইবার আইনজীবীর কাজ শুধু তথ্যপ্রযুক্তি আইনের 94 টা ধারা শুধুমাত্র পড়া নয় বরং প্রযুক্তির বিভিন্ন জায়গা গুলো একবার নেড়েচেড়ে দেখা এবং তার সম্বন্ধে একটা পরিষ্কার ধারণা রাখা খুব প্রয়োজন | না হলে সে কিন্তু তার মক্কেলের সুবিচার করতে পারবেনা I

যদিও আমি আমার আইন প্র্যাকটিসের শুরুতেই ভাগ্যক্রমে টেলিকম কোম্পানি গুলোর সাথে যুক্ত হয়ে পড়ি এবং আজকের সাইবার জগৎ যেখানে নিয়ন্ত্রণ করে মোবাইল ফোন বা তার সম্বন্ধীয় প্রযুক্তি এবং সমস্ত টেকনোলজি এখন ইন্টারনেটের দৌলতে একটা সংযুক্ত মাধ্যম হয়ে গেছে যেখানে একটা মাধ্যম থেকে আরেকটা মাধ্যমে অবিরাম ভাবে বিচরণ করা যায় I বছরটা 2010, যখন আমাকে একটি টেলিকম কোম্পানির সঙ্গে অভিযোগকারীর আইনজীবী হিসেবে যুক্ত থাকতে হয়েছিল, যেটি একটি ওয়েবসাইট বিকৃত করার মামলা ছিল এবং এটি করতে গিয়ে সত্যি বলতে আমি প্রথম সাইবার জগৎ এবং তার সমস্ত কিছু সম্বন্ধে রীতিমতো প্রেমে পড়ে যাই এবং সেই যে যাত্রা শুরু আজকে এখনো তা চলছে I আমাদের যাত্রা পথে এখন আর ক্লাসিক্যাল কম্পিউটার নেই, আমরা এখন কোয়ান্টাম কম্পিউটারের কথা ভাবছি এবং আজকে এই দীর্ঘ দশ বছর সাইবার জগতে কাজ করে এবং আপনারা সবাই জানেন যে 2014 থেকে আমাকে পশ্চিমবঙ্গ সরকার বিভিন্ন মামলায় যেখানে ইলেকট্রনিক সাক্ষ্যের এর প্রয়োগ রয়েছে সেখানে বিশেষ সহকারী প্রসেকিউটর নিয়োগ করেছেন I


বিভিন্ন মামলায় ইলেকট্রনিক সাক্ষ্যের প্রয়োগ একটা বড় ভূমিকা নিয়েছে আজকের জগতে এবং একটা দিন আসবে হয়তো যেখানে দেওয়ানী মামলা ফৌজদারি মামলা যাই হোক ইলেকট্রনিক সাক্ষ্য ছাড়া আর সম্ভব হবে না সুতরাং একটা বিরাট সম্ভাবনাময় জগত পড়ে রয়েছে এই সাইবার জগত কে নিয়ে এবং তার আশপাশ কে নিয়ে I আমার আইনজীবী বন্ধুরা যারা এই সাইবার জগৎ টাকে নিয়ে এগোতে চায় তাদের আমার মনে হয় নিম্নলিখিত জিনিস গুলো একটু মনে রাখতে হবে :


বন্ধুরা একটা ইলেকট্রনিক তথ্য কিভাবে সংগ্রহ করা হয় বা কিভাবে তাকে সংরক্ষণ করা হয় বা কিভাবে সেটা থেকে প্রয়োজনীয় তথ্য বের করে কোন লক্ষ্যে পৌঁছানো যায় বা কোন কেসের সমাধান করা যায় এবং সেই তথ্যগুলো কিভাবে আদালত এর কাছে আনা যায় এই সম্বন্ধে একটা পরিস্কার ধারনা শুধুমাত্র আইনজীবী নয় প্রতিটি মানুষের দরকার I

শুধুমাত্র সাইবার আইনজীবী হব এই ধরনের উচ্চাকাঙ্খার কোন কারণ নেই, কারণ আগামী দিনে প্রতিটি আইনজীবিকে সে পৃথিবীর যে প্রান্তেই থাকুন না কেন সাইবার জগতের সম্বন্ধে পরিষ্কার ধারণা থাকতেই হবে I তার প্রতিটি মামলায় বা তার কর্মক্ষেত্রে ইলেকট্রনিক সাক্ষ্যের প্রয়োগ অবশ্যম্ভাবী তাই সাইবার জগৎ নিয়ে জানা বিশেষ করে ইলেকট্রনিক সাক্ষ্য নিয়ে কাজ করার পদ্ধতি গুলো অবশ্যই জানা উচিত | 

পৃথিবীর যেকোন প্রান্তে আমার পশ্চিমবাংলার বন্ধুরা বা বাংলাদেশের বন্ধুরা যারা যারা বাংলা ভাষায় কাজ করেন তাদের প্রত্যেকের জন্য আমার বলা যে প্রতিদিন প্রতিনিয়ত নতুন কিছু পড়ার জন্য নিজেদেরকে তৈরি রাখতে হবে I শুধু আইন পড়লে আইনের ধারাগুলো পড়লে হবে না কিন্তু আইনের ধারাগুলো প্রয়োগ করার জন্য যে জগতে বিভিন্ন রকমের ইলেকট্রনিক
তথ্য  রয়েছে সেগুলো সম্বন্ধে সম্যক ধারণা থাকতে হবে I 

বন্ধুরা সাইবার জগত টা সম্বন্ধে ধারণা করতে গেলে প্রথমত সফটওয়্যার, হার্ডওয়্যার এবং ইলেকট্রনিক এবং নেটওয়ার্কিং সিস্টেম সম্বন্ধে একটা পরিষ্কার স্বচ্ছ ধারণা থাকলে আমাদের কাছে ব্যাপার গুলো অনেক সহজ হয়ে যাবে I 

প্রতিদিন প্রতিনিয়ত যে বিভিন্ন রকমের জটিল প্রযুক্তি আসছে সেগুলো সব আমাদের পক্ষে হয়তো জানা সম্ভব নয় কিন্তু সেগুলোর সারাংশ জানাটা খুব জরুরি এবং সেই কারণে বন্ধুরা আমি সাইবার জগৎ এবং তার আইন এবং ইলেকট্রনিক সাক্ষ্য কিভাবে ব্যবহার করতে হয় তা নিয়ে আমার ব্লগ এবং আমার ইউটিউব চ্যানেল এবং আমার ফেসবুকের ব্লগ সবকিছুতে আমি বিভিন্ন সময় বিভিন্ন আর্টিক্যাল, লেখা, ভিডিও ইত্যাদি পোস্ট করি | আপনারা দয়া করে সেগুলো দেখতে থাকবেন, সেগুলোতে সাবস্ক্রাইব করে রাখবেন এবং সেগুলো দেখে আপনাদের অভিব্যক্তি (কমেন্ট), আপনাদের প্রশ্ন আমাকে পাঠাবেন I আমি আমার যেটুকু অভিজ্ঞতা সেটুকু এর মাধ্যমে আপনাদের সঙ্গে প্রতিনিয়ত শেয়ার করব এবং এতে আমার মনে হয় যে আপনাদের অনেক সুবিধা হবে কারণ আমার দীর্ঘ বছরের আইনজীবীর (ডিফেন্স ল'য়ার) উপলব্ধি এবং তারপর এখন প্রসিকিউশনের হয়ে আমি যে কাজ করে চলেছি বিভিন্ন সময় সেই অভিজ্ঞতাগুলো যদি আমি আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করতে পারি তবে আমার ভালো লাগবে এবং আমার মনে হয় আপনাদের কোন কোন ক্ষেত্রে অনেক উপকার হতে পারে I 


আমি ফেসবুক মেসেঞ্জারে একটা প্লাটফর্ম বানিয়েছে এবং আপনাদের কোনো রকম কোনো জিনিস জানার ইচ্ছা হলে বা কোন সমস্যা থাকলে আপনারা ওই মেসেঞ্জারে লিখতে পারেন এবং আমি চেষ্টা করব round-the-clock আপনাদের সেই উত্তরগুলো দেবার এবং আপনারা যদি আপনাদের ঐ সম্পর্কিত যত রকমের চিন্তা ভাবনা সেগুলো এখানে জানাতে পারেন, আমি চেষ্টা করবো সেগুলো সম্বন্ধে আমার অভিমত আপনাদের কাছে দেওয়ার I 

আমার মনে হয় একজন আইনজীবী বা এক্সপার্ট হতে গেলে অনেক অনেক টাকা খরচা করে বড় বড় জায়গা থেকে সার্টিফিকেশন করে আসতে হবে এর কোন মূল্য নেই I অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় যে আজকে যে পরিবর্তনগুলো এসেছে যেমন ধরুন আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স বা বিভিন্ন ধরনের যেকোনো তথ্য, যে নতুন জিনিস গুলো আমরা পাচ্ছি এগুলো এক্ষুনি প্রয়োগ করার জায়গা খুব সীমিত আমাদের দেশে | আমি বলব এখন ছোট ছোট প্রবলেম গুলোর মাধ্যমে যদি আমরা কাজ করতে শুরু করি তাহলে একটা সময় পরে কিন্তু বড় বড় তথ্য প্রযুক্তি গুলো সহজেই আমরা করায়ত্ত করতে পারব | 

ভারতবর্ষের তথ্যপ্রযুক্তি আইন বা বাংলাদেশের আইসিটি আইন রয়েছে এবং আমরা জানি যে বিভিন্ন সাইবার জগৎ সম্বন্ধেও বিভিন্ন অপরাধ বা বিভিন্ন ক্ষেত্রে আইন কী হবে তা নিয়ে এই তথ্য প্রযুক্তি আইন ভারতবর্ষে এসেছে যার বাংলা অনুবাদ আমি আমার মোবাইল অ্যাপে করেছি I আপনারা বিনামূল্যে প্লে স্টোর থেকে ইন্সটল করতে পারেন I এই তথ্য প্রযুক্তি আইন কিন্তু আমাদের একটু ভালো করে পড়ে নেওয়া দরকার আইনজীবী হতে গেলে বা অন্য যেকোন ক্ষেত্রে এক্সপার্ট হতে গেলে এবং এর বিভিন্ন এপ্লিকেশন যেমন ধরুন আমি নিজে একটি ইলেকট্রনিক সাক্ষ্যের উপর মোবাইল অ্যাপ নিয়ে এসেছি, যেখানে আমার বেশ কিছু কাজকর্ম আমি তার মধ্যে তুলে ধরেছি যে কিভাবে ইলেকট্রনিক প্রমান আমাদের পুরনো ধারণা বদলে দিতে পারে কারণ আমি বিশ্বাস করি যে জিরো-ওয়ান(0 or 1) (অর্থাৎ কম্পিউটার যে ভাষা বোঝে) কখনো মিথ্যা কথা বলে না, একে পরিবর্তন বা পরিবর্ধন করা যায় কিন্তু যদি কেউ ইলেকট্রনিক সাক্ষ্যের পরিবর্তন করে সেটাও কিন্তু ধরা পড়ে যাবে I সুতরাং প্রযুক্তিকে নির্ভর করে আমরা কিন্তু নিশ্চিন্তে আমাদের মামলাগুলো সমাধান করতে পারি I 

গত তিন-চার মাস ধরে পুরো ভারতবর্ষ জুড়ে করোনা মহামারী এর জন্য এই বাধ্যতামূলক ছুটির সময় আমি অনেকগুলো মোবাইল অ্যাপ নিয়ে এসেছি এবং সেগুলো সবই অ্যান্ড্রয়েড স্টুডিও তে জাভা প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ এর সাহায্য নিয়ে বানানো I আমার কোনদিনই জাভা ভাল লাগত না কিন্তু আমি দেখলাম যে মানুষের ভালোর জন্য মানুষের উপকারের জন্য বিভিন্ন আইনের বিভিন্ন জটিল তথ্য গুলো যদি আমি মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে আনতে পারি তাহলে, মানুষের সব সময় বই বহন করা বা অনেকের বই সব সময় পড়ার মতো সময় থাকেনা, এই সমস্যাটা সমাধান হবে I সুতরাং আমার মনে হয় আপনার একটু আধটু প্রোগ্রামিং নেড়েচেড়ে দেখতে পারেন I 

কম্পিউটার সম্বন্ধে বা ইন্টারনেট সম্বন্ধে আপনাদের জ্ঞান থাকতে হবে | যেমন ধরুন একজন আইনজীবী যখন ডাক্তারকে প্রশ্ন করে বা জেরা করে তখন তাকে কিন্তু ডাক্তারি শাস্ত্র সম্বন্ধে পড়তে হয় ঠিক তেমনি একজন আইনজীবি সাইবার জগৎ নিয়ে যখন যে মামলা করবে তার সম্বন্ধে কিছু তথ্য জানতে হবে, যার ফলে সে তথ্যের উপর ভিত্তি করে সে সাক্ষীকে এমন প্রশ্ন করতে পারে যাতে সেখান থেকে তার কাঙ্ক্ষিত উত্তর পেয়ে যায় যেটাতে মামলাটিকে কে সমাধান করতে সাহায্য করবে এবং সত্যকে প্রতিষ্ঠিত করতে সাহায্য করবে I 

পরিশেষে এটা বলব যে এরকম মনে করার কোনো কারণ নেই যে সাইবার আইনজীবী হতে গেলে বা সাইবার বিশেষজ্ঞ হতে গেলে সব সময় আপনাকে বিটেক বা কম্পিউটার সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিং করে আসতে হবে আপনার এমসিএ, বিসিএ ডিগ্রি থাকতে হবে I সবচেয়ে বড় জিনিস হচ্ছে যে আপনি বিষয়টা বুঝতে পারেন কিনা I এরকম অনেক ব্যক্তি আছে যারা সম্পূর্ণ অন্য ক্ষেত্রের অথচ তারা এত ভাল কম্পিউটার প্রোগ্রামার যে তারা এখন অনেক ভালো ভালো কাজ করছেন I সুতরাং প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ একটা লজিক বা একটা এনালিটিক্যাল যুক্তিসঙ্গত চিন্তার উপরে চলে I আমরা যদি আমাদের চিন্তা ভাবনা গুলো আমাদের সফটওয়ারের মাধ্যমে প্রকাশ করতে যাই, এখানে অনেক ভাষা আছে যেমন ধরুন পাইথন, জাভা, সি, সি প্লাস প্লাস ইত্যাদি | আপনি আগে আপনার পছন্দের যেকোন একটা ভাষা বা তার গ্রামার বা তার বিভিন্ন পদ্ধতি গুলো শিখে নিন, তারপরে আপনি সেই ভাষায় আপনার অভিব্যাক্তিগুলো লিখতে থাকুন I মনে রাখবেন এই চিন্তা ভাবনা টা আপনি যদি আপনার ল্যাঙ্গুয়েজ এর মাধ্যমে অভিব্যক্ত করতে পারেন সেটাই আপনার প্রোগ্রাম, সেটাই একটা সফটওয়্যার এবং সেটা দিয়ে প্রচুর প্রচুর মানুষের উপকার হতে পারে I 


তাই আর দেরি নয় লেগে পড়ুন, আজকের তথ্যের যুগে সাইবার জগৎ সম্বন্ধে যত পারুন জানুন এবং সেগুলো প্রয়োগ করুন দেখবেন আগামী দিনে আপনারাও একজন সাইবার এক্সপার্ট বা সাইবার আইনজীবী হয়ে গেছেন|

এই লেখাটা কেমন লাগলো আপনারা জানাবেন আপনাদের সুচিন্তিত মূল্যবান মতামত এই পোস্টটিতে আপনারা দেবেন | এবং হ্যাঁ অবশ্যই আমার ব্লগে সাবস্ক্রাইব করবেন বা সাবস্ক্রাইব বাটনটি ক্লিক করবেন যাতে আগামী দিনে আমার নতুন নতুন পোস্ট গুলো আপনারা পেয়ে যান এবং সেগুলো পড়তে পারেন |

সব আমার ব্যক্তিগত মতামত | মানুষ রাজি হতে পারে বা নাও পারে। আমি এই ব্লগের পাশাপাশি এই পোস্টে কোনও আইনী মতামত দেইনি।
Did you find this write up useful? YES 0 NO 0
Send
Featured Members view all

New Members view all

×

C2RMTo Know More

Something Awesome Is In The Work

0

DAYS

0

HOURS

0

MINUTES

0

SECONDS

Sign-up and we will notify you of our launch.
We’ll also give some discount for your effort :)

* We won’t use your email for spam, just to notify you of our launch.